আনুশকাই এখন বিরাটের সবচেয়ে বড় প্রেরণা

210

এই কদিন আগের ঘটনা, বিয়ের পর দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসেই ব্যর্থ হয়েছিলেন বিরাট কোহলি। ভারতীয় অধিনায়ক মাত্র পাঁচ রানে সাজঘরে ফিরে গেলে এর জন্য কড়া সমালোচনা শুনতে হয়েছিল তাঁর স্ত্রী বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মাকে!  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোহলির রান না পাওয়ার জন্য সমর্থকরা আনুশকাকে দায়ী করেছিলেন।

সেই কোহিলিই কি না, ওয়ানডে সিরিজে দারুণ উজ্জ্বল। ছয় ম্যাচের এই সিরিজের তিনটিতেই শতক হাকান ভারতীয় অধিনায়ক। করেছেন ক্যারিয়ারের ৩৫তম শতক। তা ছাড়া পুরো সিরিজে ৫৫৮ রান করে সিরিজ সেরাও তিনি। আর তাঁর দল সিরিজ জিতেছে ৫-১ ব্যবধানে।

কোহলির এই সাফল্যে পেছনে থেকে নাকি অনুপ্রেরণা জুগিয়েছেন তাঁর স্ত্রী আনুশকা শর্মা। ম্যাচ শেষে ভারতীয় অধিনায়ক তাই বলেন, ‘আমার এই সাফল্যের নেপথ্যে কিছু কাছের মানুষ রয়েছেন। বিশেষ করে, আমার স্ত্রী। পুরো সিরিজে সে প্রেরণা জুগিয়েছে আমাকে। তার জন্য আমি কৃতজ্ঞ। অতীতে এর জন্য অনেক কথা শুনতে হয়েছে আমার স্ত্রীকে। এই প্রেরণা থেকে প্রাপ্তি একটা দুর্দান্ত অনুভূতি।’

আসলেও তাই আনুশকাকে অনেকবাই সমালোচনা সইতে হয়েছে। মাঝখানে কোহলির ব্যর্থতার জন্য সমর্থকরা আনুশকাকে দায়ী করেছিলেন। বিশেষ করে গত অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপের সময় তাঁদের নিয়ে অনেক ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ করা হয়েছিল। সে সময় কোহলিও এর জবাব দিয়েছিলেন, ‘একজন মানুষ হিসেবে বলতে চাই, আমি ভীষণ আহত হয়েছি। যারা আমাদের নিয়ে আজেবাজে কথা বলেছে এবং যে ভঙ্গিতে বলেছে, তাদের নিজেদের নিয়েই লজ্জিত হওয়া উচিত। এ ঘটনায় ব্যক্তিগতভাবে আমি খুব হতাশ।’

গত বছর ১১ ডিসেম্বর ইতালির মিলানে কোহলি-আনুশকা জুটি গাঁটছড়া বাঁধেন। ২০১৩ সালে একটি বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজ করার সুবাদে আনুশকার সঙ্গে কোহলির ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। এরপর বন্ধুত্ব থেকে প্রেম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here