‘বাবাকে মাঝে মাঝে অচেনা লাগে’!

27

বাবা মানে নির্ভরতা। বাবা সন্তানের জন্য নিখাদ আশ্রয়স্থল। বাবা শাশ্বত, চির আপন। বাবার প্রতি সন্তানের চিরন্তন ভালোবাসার প্রকাশ প্রতিদিনই ঘটে। তারপরও বাবার জন্য বিশেষ দিন হিসেবে প্রতি বছর জুন মাসের তৃতীয় রোববার বিশ্ব বাবা দিবস পালিত হয়ে আসছে।

বিশ্ব বাবা দিবসে বাবাকে নিয়ে নিজের অনুভূতির কথা জানাচ্ছেন, চ্যানেল আগামী’র প্রতিনিধি মহিবুল ইসলাম বাঁধন  ।। 

” বেশ কয়েকবছর আগের কথা। আমি তখন স্কুলে পড়ি। ক্লাস সিক্স কিংবা সেভেনে। তো হঠাৎ একদিন স্কুলে গিয়ে শুনি আজ বাবা দিবস। সাধারণত ‘মা দিবস’ খুব ঘটা করে মনে রাখলেও ‘বাবা দিবস’ কেনো জানি মনে থাকে না। হয়তো বাবার প্রতি ভালোবাসাটা একটু কম বলেই। 

পুরো ক্লাস জুড়ে ভাবতে লাগলাম কী করা যায়। বাবাকে কি কোনো উপহার দিয়ে চমকে দিব। আজীবন যেই বাবা হরেক রকম উপহার এনে আমাদের চমকে দিতেন, আজ অন্তত বিশেষ দিনে বাবাকে চমকে দেওয়া যাক। কিন্তু কিছুতেই কিছু মাথায় আসছিল না। কোনোভাবেই ক্লাসের পড়াতেও মনোযোগ দিতে পারছিলাম না। ঘটনাক্রমে ক্লাসে অমনোযোগী থাকায় ক্লাস থেকে বেরও করে দিয়েছিল। আমি তো খুব মজাই পাচ্ছিলাম। অন্তত বাবার জন্য এতোটুকু অপমান তো সহ্য করা কিছুই না। 

হঠাৎ মাথায় একটা বুদ্ধি খেলে গেলো! ব্যাগ খুঁজে আমি দশ টাকার দুটো নোট আর একটা বিশ টাকার নোট পেলাম। ব্যস! এতেই হবে। স্কুল ছুটি হলে পাশের লাইব্রেরি থেকে একটা কলম কিনে নিলাম। কিন্তু এতো ছোট একটা উপহারে বাবা খুশি হবে তো? ভাবতে ভাবতে বাসায় চলে এলাম। ব্যাপারটা আম্মুর থেকেও গোপন রাখলাম। 

সারাক্ষণ মাথায় এক চিন্তা আসছিল। বাবা কি এতে খুশি হবে? ভাবলাম উপহারটার সাথে বাবাকে নিয়ে একটা কবিতাও লিখে ফেলি। কিন্তু শেষমেশ আর লেখা হলো না। 

আমি আর অপেক্ষা করতে পারছিলাম না। কখন বাবা বাসায় আসবে।

বাবা বাসায় আসলো রাত ১০ টার দিকে। সাধারণত কাজের চাপ বেশি থাকলেই বাবার এতো রাত হয়। কেনো জানি বাবাকে ঐদিন খুব ক্লান্ত লাগছিল। আমি আস্তে আস্তে বাবার কাছে গেলাম। কমদামি উপহারটাকে প্যান্টের পকেটে রেখে বাবার কাছে গিয়ে দাঁড়ালাম। 

‘ কি রে, কিছু বলবি?’

‘ আসলে বাবা, এটা আজকের জন্য তোমার গিফট। ‘ 

কথাটা বলেই আমি একটা বড় হাসি দিয়ে বাবার মুখের দিকে তাকালাম। বাবার মুখ দিয়ে একটি কথাও বেরোলো না। হঠাৎ বাবা আমাকে বুকে জড়িয়ে ধরলেন। বাবার স্নেহমাখা বুকে থেকেই আমি বুঝতে পারলাম বাবা কাঁদছে। 

এর আগে বাবাকে কখনো কাঁদতে দেখিনি। সেদিনই প্রথম পাথরের মতো শক্ত মানুষটাকে এতো কোমল হতে দেখলাম। 

এ কান্না যেনো আনন্দের। অকৃত্রিম এক ভালোবাসার। মুহূর্তের জন্য আমাকে পৃথিবীর সবথেকে সুখী মানুষ মনে হলো। 

রাগী স্বভাবের মানুষটাকেই কেমন জানি অচেনা মনে হলো। 

কিন্তু সেদিনও বাবাকে মুখ ফুটে বলিনি যে, বাবা আমি তোমাকে ভালোবাসি। অনেক বেশি ভালোবাসি। 

সেই রাতটা আমার কাছে আজও সবথেকে স্মরণীয় হয়ে আছে।