আত্মহত্যা করলেন বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত

58

মহিবুল ইসলাম বাধন ||

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের রহস্যজনক এক মৃত্যু হয়েছে। রবিবার সকালে মুম্বাইয়ের বান্দ্রার বাড়ি থেকে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। স্থানীয় পুলিশের দাবি, গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায় তাঁকে। তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলেই প্রাথমিক ভাবে অনুমান করেছে পুলিশ।

সকালে সুশান্ত সিং রাজপুতের বাড়ির এক পরিচারক স্থানীয় থানায় ফোন করে পুলিশকে খবর দেন। পরক্ষণেই ঘটনাস্থলে পৌঁছে পুলিশ তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করে। তবে ঠিক কী কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন তা এখনও পর্যন্ত অজানা।

১৯৮৬ সালের ২১ জানুয়ারি পাটনাতে জন্মগ্রহন করেন এই অভিনেতা। মেধাবী এই অভিনেতা মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এ ভর্তি হলেও থিয়েটার আর নাচের প্রতি ঝোঁক থাকায় পড়ালেখা আর শেষ করা হয়ে উঠেনি।

অভিনয়ের প্রতি বিশেষ আকর্ষণ থাকায় শেষ পর্যন্ত মুম্বাইতে চলে আসেন সুশান্ত। সেখানে ২০০৮ সালে প্রথম একতা কপূরের প্রযোজনায় ‘কিস দেশ মে হ্যাঁ মেরা দিল’ সিরিয়ালে অভিনয় করার সুযোগ পান তিনি। অভিনয়ের যাত্রাটা ও শুরু তখন থেকেই।

এরপর ২০০৯ সালে ‘পবিত্র রিস্তা’ সিরিয়ালে মুখ্য চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পান তিনি। তারপর আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাঁকে। সিরিয়ালে অভিনয় করতে করতেই ‘জরা নাচকে দিখা’ এবং ‘ঝালক দিখলা জা’-র মতো জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো তে অংশগ্রহণ করেন তিনি।

ঠিক এই সময়ই টিভি সিরিয়াল থেকে বলিউডের দিকে ঝুঁকতে শুরু করেন সুশান্ত। সুযোগমতো ‘পবিত্র রিস্তা’ সিরিয়াল ছেড়ে বিদেশে ফিল্মমেকিং এর বিশেষ কোর্স করতে চলে যান তিনি। সেখান থেকে ফিরে এসে অভিষেক কপূর এর প্রযোজনায় নির্মিত ‘কাই পো ছে’ ছবির জন্য অডিশন দেন।

চেতন ভগতের ‘দ্য থ্রি মিসটেকস অব মাই লাইফ’ বইয়ের গল্প অবলম্বনে তৈরি করা ‘কাই পো ছে’-তে তাঁর সঙ্গে সহ অভিনেতা হিসেবে কাজ করেন রাজকুমার রাও এবং অমিত সাধও। ছবিতে সুশান্তের অভিনয়ের ব্যাপক প্রশংসা কুড়োয়। দর্শকমহলেও বেশ পরিচিতি পান তিনি।

এরপর একে একে ‘শুদ্ধ দেশি রোম্যান্স’, ‘পিকে’, ‘ডিটেক্টিভ ব্যোমকেশ বক্সী’-র মতো জনপ্রিয় সব ছবিতে অভিনয় করেন সুশান্ত।

ভারতীয় কিংবদন্তি ক্রিকেটার মহেন্দ্র সিং ধোনি-র বায়োপিক ‘এমএস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি’(MS DHONI: The Untold Story) -তে তাঁর অভিনয় সমালোচকদের ব্যাপক প্রশংসা কুড়োয়। পাশাপাশি ‘কেদারনাথ’ ছবিতে তাঁরই বিপরীতে অভিনয়ে হাতেখড়ি হয় সাইফ আলি খানের কন্যা সারা আলি খানের।

কিন্তু ২০১৭ সালে তাঁর অভিনীত ‘রাবতা’ ছবিটি বক্স অফিসে কোনো আলোড়ন ফেলতে পারেনি। বরং লোকসান গুনতে হয় ছবিটির জন্য।
কিন্তু সুশান্তের অভিনীত ছবি ‘ছিছোরে’ ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়। যা দর্শকদের মনে বিশেষ জায়গা করে নেয়। তাঁর অভিনীত ‘ড্রাইভ’ ছবিটি সরাসরি নেটফ্লিক্সে মুক্তি পায়।

লক্ষ কোটি দর্শকের ভালোবাসাকে পেছনে ফেলে সুশান্ত সিং আজ গত। তবু তিনি স্মৃতির পাতায় থাকবেন তাঁর জনপ্রিয় সব সিনেমার কল্যাণে, অভিনয়ের কল্যাণে।

তথ্যসূত্রঃ ভারতীয় গণমাধ্যম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here