DHABANG.Com এর প্রধান নির্বাহী পরিচালক (CEO) হলেন তরুণ উদ্যোক্তা আলিফ

184

ইমাম হোসেন আলিফ এই প্রজন্মের একজন অনুপ্রেরণা ও জনপ্রিয় তরুণ উদ্যোক্তা। তিনি একাধারে একজন মোটিভেশনাল স্পিকার ও নানা প্রতিষ্ঠানের মেন্টর। তিনি মাত্র ২০ বছর বয়সে মিলিওনেয়ার হয়েছেন। তাকে বাংলাদেশের “ইয়ংগেস্ট মিলিওনেয়ার” বলা হয়। এছাড়াও আন্তর্জাতিক ও জাতীয় পর্যায়ে অসংখ্য পুরস্কার পেয়েছেন তরুণ এই উদ্যোক্তা।

আলিফ এর মূল উদ্দেশ্য হলো মাতৃভূমি বাংলাদেশের সমস্যা সমাধান করা। এই সমস্যা সমাধানে অনেক কাজ করেছেন ও করে চলেছেন আলিফ। ছোটবেলা থেকেই আলিফের ইচ্ছে ও স্বপ্ন ছিলো অনন্য ও সবার থেকে আলাদা। তিনি চাইতেন বাংলাদেশকে সোনার বাংলায় রুপান্তর করতে। অর্থাৎ বাংলাদেশকে বিশ্বের কাছে রিপ্রেজেন্ট করাই ছিলো আলিফের স্বপ্ন। বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে চূড়ায় নিয়ে যাওয়াই ছিলো তার লক্ষ্য। এই স্বপ্ন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে তার অতুলনীয় দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে তিনি বিভিন্ন উদ্ভাবন ও উদ্ভাবনী প্রকল্পে কাজ করতে থাকেন । তাঁর পুরস্কার সম্পর্কে খানিকটা বলা হলে বলা যেতে পারে, তিনি আন্তর্জাতিক বিজনেস জিনিয়াস সিজন-৫ , ন্যাশনাল আইসিটি এ্যাওয়ার্ড ২০১৯, আন্তর্জাতিক টেলকো ওয়ার-ফেয়ার, বেস্ট এন্ট্রপ্রেনার এওয়ার্ড সহ আরও অনেক জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছেন। বড় বড় বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও প্রচুর এওয়ার্ড পেয়েছেন সকলের প্রিয় এই উদ্যোক্তা।

গত ১২-১১-২০২০ তারিখে আনুষ্ঠানিকভাবে Dhabang.com কোম্পানি এর প্রধান নির্বাহী পরিচালক (CEO) এবং Dhabang Limited কোম্পানীর Director হলেন তরুণ এই উদ্যোক্তা। তাকে অনুষ্ঠান ও আয়োজনের মাধ্যমে বরণ করে নেয় Dhabang পরিবার।

Dhabang.com হলো একটি ই-কমার্স মার্কেটপ্লেস । এটি যেমন একটি ই-কমার্স সাইট হিসেবে মানুষের হাতের মুঠোয় যেকোনো ব্র‍্যান্ডের যেকোনো পণ্য পৌঁছে দিবে, তেমনি মার্কেটপ্লেস হিসেবে বাংলাদেশের বেকারের হার কমিয়ে আনবে। এই ই-কমার্স মার্কেটপ্লেসটি বর্তমানে ৬টি ক্যাটাগরীতে বিজনেস পরিচালনা করছে, DHABANG EXPRESS GROCERY, DHABANG EXPRESS PHARMACY, DHABANG EXPRESS FASHION, DHABANG EXPRESS TEA, DHABANG EXPRESS FOOD, DHABANG EXPRESS SHOP. এই মার্কেটপ্লেসটির সাহায্যে অনেক স্বপ্নবাজ তরুণরা কম পুঁজি নিয়ে ব্যাবসা শুরু করতে পারছেন। এছাড়াও DHABANG TEA সারা বাংলাদেশে ৬৪ জেলায় সাপ্লাই দিচ্ছে। প্রতিনিয়ত এস আর ও ডিলার নিচ্ছেন ঢাবাং লিমিটেড কোম্পানি।

তরুণ উদ্যোক্তা আলিফ এই যাত্রা ও নতুন পথচলা শুরু করায় সকলের কাছে তাঁর জন্য এবং তার সকল পার্টনার ও বিশেষ করে তার পার্টনার তারেকের জন্য দোয়া চেয়েছেন। দেশের কল্যানে এগিয়ে চলবে তরুণ এই উদ্যোক্তা – এটিই আমার এবং চ্যানেল আগামীর প্রত্যাশা।

লেখা : সামিয়া আরেফিন