দেশে সর্বপ্রথম অনলাইন সুপারহিরো ইভেন্ট’র আয়োজন

92

“Supermania:Marvel DC Showdown”

বাংলাদেশে সুপারহিরো শব্দটা শুনেনি এমন কোনো মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। বর্তমান সময়ে দেশের মানুষের মধ্যে বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মের মাঝে সুপারহিরোদের নিয়ে উত্তেজনা কেমন তা Marvel বা DC ইউনিভার্সের যে কোনো ফিল্ম রিলিজের সময়ই দেখা যায়। দেশের সকল মানুষের সাথে পপ কালচারের বিষয়টি কোনো না কোনো ভাবে সরাসরি জড়িত। আধুনিক গান, নাচ, নাটক, চিত্রকলা প্রভৃতি সবকিছুই পপ কালচারের অংশ। এর মধ্যে কিন্তু সুপারহিরোর বিষয়টাও বাদ যায় না। আজকালকার দিনে পপ কালচার বেশ গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় হয়ে দাড়িয়েছে। বিদেশে সুপারহিরোর বিষয়টি খুব গুরুত্বের সাথে নেয়া হলেও বাংলাদেশে তরুণ প্রজন্ম বাদে আর কেউ এই বিষয়টি তেমন একটা গুরুত্বের সাথে নেন না। অথচ আগামী যুগের জন্য পপ কালচারকে গুরুত্ব দেয়া ছাড়া আর কোনো উপায় আমাদের জন্য নেই। তাই এই ব্যাপারটিকে অনেক গুরুত্ব সহকারে নিয়ে এবং মানুষকে কুইজ, চিত্রকলা, সৃজনশীল লেখনীর প্রতি আকৃষ্ট করতে ও তাদের জ্ঞানের পরিধি আরো বৃদ্ধি করবার জন্যে ধুমধাম করে আগামী ১৭-১৮ই জুলাই একদল উদ্যোগী তরুণের সংগঠন “Super Maniacs” আয়োজন করতে যাচ্ছে দেশের সর্বপ্রথম অনলাইন সুপারহিরো ইভেন্ট “Supermania: Marvel DC Showdown”।

এই করোনা মহামারীর সময়ে বিভিন্ন স্কুল কলেজে যেসব মেলা হতো তা নেয়া একেবারেই অসম্ভব। তবে এই দেশের শিক্ষার্থীরা তাই বলে অলস বসে থাকে নি। স্কুল কলেজ বন্ধ হওয়ার কিছুদিন পর থেকেই শিক্ষার্থীরা শুরু করে দেয় অনলাইনে সব ধরনের ইভেন্ট নামানো। এই কয়েক মাসে হরেক রকমের ইভেন্টে ফেসবুকে দেখা গিয়েছে। তবে দুঃখজনক ভাবে এখনো পর্যন্ত কোনো সংগঠন সুপারহিরো সংশ্লিষ্ট কোনো ইভেন্ট আয়োজন করেনি যদিও করোনা মহামারীর আগে এরকম ইভেন্ট সচরাচর দেখা যেতো। তাই Super Maniacs-ই প্রথম কোনো সংগঠন যা এই সেক্টরের বড় একটি ইভেন্ট আয়োজন করতে যাচ্ছে। এটি আয়োজন করার একটি বড় কারণ হলো মানুষদের মধ্যে লকডাউনের ফলে সৃষ্ট একঘেয়েমিতা দূর করা।

Supermania-তে ফ্যান ফেবারিট পাঁচটি ইভেন্ট রয়েছে। সেগুলা হলো:

  • MCU কুইজ
  • DC মুভিজ কুইজ
  • আর্ট ওয়ার্ক কনটেস্ট
  • রিভিউ কনটেস্ট
  • কসপ্লে ফোটোগ্রাফি কনটেস্ট।

ইভেন্টের পেইড সেক্টরের জন্য বিজয়ীদের মোট ৫০০০ টাকা দিয়ে পুরস্কৃত করা হবে! কসপ্লের জন্য প্রত্যেক বিজয়ীকে ক্রেস্ট এবং সার্টিফিকেট দেয়া হবে। এছাড়াও এই ইভেন্টের বড় একটি অংশ হলো কুইজ। সকলেই জানে যে মেধা বৃদ্ধি করতে কুইজ মানুষকে কতটা সহায়তা করে। পরন্তু, Supermania তে আছে আর্ট ওয়ার্ক কনটেস্ট এবং কসপ্লে যা কিশোর কিশোরীদের চারু ও কারুকলার দিক থেকে অধিক সাহায্য করবে। ইভেন্টের রিভিউ প্রতিযোগীতাটি প্রতিযোগীদের মধ্যে লুকিয়ে থাকা সাহিত্যিককে জাগিয়ে তুলতে ও সৃজনশীলতা বৃদ্ধি করতে অনেক সাহায্য করবে। “Supermania: Marvel DC Showdown” বাঙালির জন্য শুধুমাত্র একটি নতুন অভিজ্ঞতাই নয় বরং তাদের সৃজনশীলতা বিকাশের একটি বিনোদনমূলক নতুন উপায়।

অবাক করার মত বিষয় হলেও সত্য, এই ইভেন্টটি আয়োজন করছে বাংলাদেশের সুনামধন্য কিছু প্রতিষ্ঠানের হাতে গণা কিছু তরুণ ছাত্রছাত্রী। সংগঠনটির নির্মাতা হলেন আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী নাফিস আকবর, মাইনুদ্দিন সাফা অপূর্ব, সামিউল হক ও আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ। এছাড়াও তাদের সাথে রয়েছে সায়েম, রাজভি, আইমান, শাফিকা, আনজুম, মম,  সাদিক, জুনায়েদ, সামিউল, সিয়াম, সাদী এবং আরও অনেকে।

ইভেন্টের অফিসিয়াল কসপ্লে পার্টনার “BD Cosplayers”। অনলাইন পার্টনার “Evolution 360” এবং “AllStar Online”। ইয়ুথ ম্যানেজমেন্ট পার্টনার “Youth”, “Call For Nation”, “Youthpreneur Network” এবং “Youth Talents”। স্ট্রাটেজিক পার্টনার “Valour Youth”। ম্যাগাজিন পার্টনার “Retro Dacca Magazine”। মিডিয়া পার্টনার “Channel Agami”।

এসব কথা শুনে হয়তো অনেকে হকচকিয়ে যেতে পারেন, তবে চমকে যাওয়ার মতো আরও অনেক কিছু এখনো বাকি আছে। পপ কালচারের উপর অনেক ইভেন্টই আয়োজিত হয়েছে বাংলাদেশে। তবে এই বিষাদগ্রস্ত সময়ে এরকম অনলাইন ইভেন্ট আয়োজন এই প্রথম। Super Maniacs এর আয়োজিত প্রথম ইভেন্ট Supermania শুরু হবে আগামী ১৭ জুলাই কিন্তু এর মধ্যেই তুমুল জনপ্রিয় হয়ে গিয়েছে কয়েকজন কিশোরের তৈরি এই প্রতিষ্ঠান। এত জনপ্রিয়তার ব্যাপারটি মোটেও অস্বাভাবিক নয় কারণ ইচ্ছাশক্তি ও পরিশ্রম দ্বারা সম্পাদিত কাজ ফলাফল দেওয়ার সময় কখনো দেখে না কাজ সম্পাদনকারীর বয়স বরং দেখে তাদের উদ্যম ও প্রচেষ্টা।

ইভেন্ট পেজ লিংক :

https://facebook.com/events/s/supermania-marvel-dc-showdown/285864789451887/?ti=icl

অফিশিয়াল ফেইসবুক পেজ লিংক :

https://www.facebook.com/Super-Maniacs-100335738326827/

মহিবুল ইসলাম বাধঁন