জামিনে মুক্তি পেলেন সালমান খান

357

৪৮ ঘণ্টা কারাবাসের পর জামিনে মুক্তি পেয়ে মুম্বাইয়ের উদ্দেশ্য রওনা হয়েছেন বলিউড তারকা সালমান খান। গত বৃহস্পতিবার কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় পাঁচ বছরের দণ্ডে দণ্ডিত হয়ে যোধপুর কারাগারে জায়গা হয় ৫২ বছর বয়সী এই তারকার। ওই মামলায় শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সালমানের জামিনের আবেদনের বিষয়ে শুনানি শুরু হয়। দীর্ঘ সময় শুনানি শেষে বিকেলে তার জামিন মঞ্জুর করে রায় দেন বিচারক রবীন্দ্র কুমার যোশি।

এরপরই ভারতীয় সময় সন্ধ্যা ছয়টার দিকে যোধপুর কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বেরিয়ে ‘ভাইজান’ যোধপুর বিমানবন্দরে যান বলে পুলিশের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

ওই কর্মকর্তা বলেন, জামিনের প্রয়োজনীয় কাজগপত্র কারাকর্তৃপক্ষের হাতে পৌঁছালে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়। এরপর পুলিশি প্রহরায় সালমান খানকে বিমানবন্দরের দিকে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকেই বিমানে এখন মুম্বাইয়ে যাবেন। ১৯৯৮ সালের অক্টোবরে যোধপুরে ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির শুটিং চলাকালে কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার অভিযোগ ওঠে সালমান খানের বিরুদ্ধে।

গত বৃহস্পতিবার ওই মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় যোধপুরের আদালত। একই মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় খালাস পান বলিউড তারকা টাবু, নীলম, সোনালি বেন্দ্রে ও সাইফ আলি খান।

কৃষ্ণসার হরিণ ভারতের বিশনয় সম্প্রদায়ের মানুষের কাছে পূজনীয় প্রাণী। তারা এই হরিণের পূজা করেন। সালমান খানের যাতে সাজা হয় সেজন্য দীর্ঘদিন ধরে এই মামলার পেছনে লেগে ছিলেন বিশনয় সম্প্রদায়ের মানুষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here