এই গল্পটা আমাদের

947

জুবায়ের ইবনে কামাল

গ্রামের কোন ছেলে যখন চাকুরীর উদ্দেশ্যে শহরে পাড়ি জমায় তখন তার বুকে থাকে একরাশ স্বপ্ন। আর আড়ালে থাকে তার মমতাময়ী মায়ের দু:খ সহ আরো অনেক কিছু। নাটক-সিনেমাগুলোতে বেশীরভাগ সময়ই অতিপ্রাকৃত বিষয় দেখানো হয়। যা বাস্তবে কখনো সম্ভবপর হয়না। কিন্তু নাটক তো জীবন থেকেই নেয়া। মায়ের কান্না, গ্রাম ছেড়ে অচেনা শহরের অভিজ্ঞতা, জীবনধারণের জন্য কষ্টের মত জীবনের সাথে ওতপ্রোত ভাবে মিশে থাকা ছোট ছোট অসংখ্য গল্প নিয়েই সাজানো হয়েছে নাটক ‘আমাদের গল্পটা এমনও হতে পারতো’। আর এই নাটকটি নির্মান করেছেন গতানুগতিকতার বাইরের তরুণ নির্মাতা মাবরুর রশীদ বান্নাহ।

নাটকটির গল্প মোরছালিন মাসুম লিখলেও চিত্রনাট্য তৈরী করেছেন নির্মাতা নিজেই। নাটকে রয়েছে বাস্তবতার হাতছানি। জীবনে হাজারো অপূর্ণতা দেখা যায়, হয়তো একসময় সেগুলো পূর্ণতাও পায়। কিন্তু তখন সেগুলোর প্রয়োজন ফুরিয়ে যায় জীবন থেকে। আর অপূর্ণতা থাকার সময় কষ্টের অনুভূতিগুলো খুব ভালো ভাবেই পরিলক্ষিত হয়েছে এই নাটকে। ইমোশোনের দৃশ্য বেশী থাকলেও দর্শকদের একঘেয়েমি দূর করতে নাটকে রয়েছে ভালোবাসার দৃশ্য। তাতেও কোন বাড়াবাড়ি নেই।

নাটকে গ্রাম থেকে শহুরে চাকরীর খোঁজে আসা ছেলের চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইরফান সাজ্জাদ। আর তার মায়ের ভূমিকায় আছেন অভিজ্ঞ অভিনেত্রী মনিরা মিঠু। ইরফান সাজ্জাদের বিপরীতে অভিনয় করেছেন সাফা কবির। চরিত্র অনুযায়ী সাফা এবং ইরফানকে পারফেক্ট হিসেবেই ধরেছেন নির্মাতা।

মানুষ কেন এই নাটক দেখবে এমন প্রশ্নের জবাবে নির্মাতা মাবরুর রশীদ বান্নাহ চ্যানেল আগামীকে বলেন, ‘এই গল্পটা শুধু আমার আপনার নয় ; বরং এই গল্পটা হাজারো জানা-অজানা মানুষের জীবনের গল্প। সুতরাং দর্শক যেন নিজের গল্পটাই পর্দায় দেখতে পাবেন।’

‘আমাদের গল্পটা এমনও হতে পারতো’ নাটকে আরো অভিনয় করেছেন ইভার সাইর, গোলাম রাব্বানী মিন্টু প্রমুখ। নাটকটি প্রচারিত হবে ১৭ই নভেম্বর দুপুর তিনটায় চ্যানেল আই-তে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here